সিবিআই এর ডাকে গরহাজির, কোথায় লুকিয়ে রাজীব কুমার, খুঁজছে সিবিআই

603
গ্রেফতার করতে রাজীব কুমারের বাড়িতে সিবিআই, আবার কি ধর্মতলায় মমতার ধর্না/The News বাংলা
গ্রেফতার করতে রাজীব কুমারের বাড়িতে সিবিআই, আবার কি ধর্মতলায় মমতার ধর্না/The News বাংলা

সকাল ১০ টার মধ্যে সিবিআই দফতরে; তাঁকে হাজিরা দিতে ডেকেছিল সিবিআই। কিন্তু তাতে কর্ণপাত করেননি; সারদা নথি হেরাফেরি কাণ্ডে যুক্ত কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার। সিবিআইয়ের বিভিন্ন দল তাঁকে হন্যে হয়ে খুঁজছে। দেখা মাত্র রাজীব কুমারকে গ্রেফতার করা হবে। মনে করা হচ্ছে; কলকাতা হাইকোর্ট বা বারাসত আদালতে; তিনি সোমবারই আগাম জামিনের আবেদন করতে পারেন।

দেখতে পেলেই গ্রেফতার; রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে লুক আউট নোটিশ জারি করেছে সিবিআই। জেলে যাওয়া ছাড়া; আর কোন রাস্তাই নেই কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনারের কাছে। চরম অস্বস্তিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার। হাইকোর্ট বা বারাসতে আগাম জামিনের আবেদন করতেই; লুকিয়ে আছেন তিনি। এমনটাই সন্দেহ সিবিআইয়ের।

শেষ আশাও শেষ হয়ে গিয়েছিল আগেই। আগাম জামিন এর আবেদন; শোনেইনি দেশের শীর্ষ আদালত। কলকাতা হাইকোর্ট বা বারাসত কোর্ট; কোথায় আগাম জামিন পাননি রাজীব। এরপরেই তাঁর বিরুদ্ধে লুক আউট নোটিশ জারি করে সিবিআই।

সারদা কেলেঙ্কারিতে প্রমাণ লোপাটে অভিযুক্ত; কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার। মমতার প্রিয় এই অফিসারকে যে কোন মুহূর্তে গ্রেফতার করবে সিবিআই। লুক আউট নোটিশ জারির পর; বাঁচার আর কোন রাস্তা রইল না রাজীবের।

সুপ্রিম কোর্টে আগেই জোর ধাক্কা খান মমতার প্রিয় অফিসার; আইপিএস ও কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার। রাজীব কুমারকে গ্রেফতার করা যাবে না; এই রক্ষাকবচ তুলে নেয় দেশের শীর্ষ আদালত।

এরপর, মমতার প্রিয় অফিসার রাজীব কুমারের আগাম জামিনের আবেদন শোনেইনি; সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি অরুণ মিশ্রর ডিভিশন বেঞ্চ। তাঁকে গ্রেফতার করা যাবে না, সুপ্রিম কোর্টের এই রক্ষাকবচ তুলে নেওয়ার পর; আর আগাম জামিনের আবেদন শোনার কোন প্রশ্নই নেই বলে; জানিয়ে দেন বিচারপতি অরুণ মিশ্র।

নিজেদের হেফাজতে নিয়ে; রাজীব কুমারকে জেরা করবে সিবিআই। রাজীব কুমারকে নিয়ে সিবিআই মমতা; বা রাজ্য কেন্দ্র সংঘর্ষ অনেক দিন ধরেই চলছে। সিবিআই লাউডন স্ট্রিটে তাঁর বাসভবনে হানা দেওয়ার পর; সিবিআই কর্তাদের বাড়ির ভিতর ঢুকতে বাধা দেয় কলকাতা পুলিশ।

সিবিআই হানার প্রতিবাদে; মেট্রো চ্যানেলে ধর্নায় বসেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। ধর্নামঞ্চে যোগ দেন রাজীবও। এখন যে কোন মুহূর্তে গ্রেফতারের মুখে; মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রিয় পুলিশ অফিসার।

Please follow and like us:
error

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন