কলকাতা নয় কোচবিহার থেকে ভোট মনিটরিং করবেন বিশেষ পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে

258
কলকাতা নয় কোচবিহার থেকে ভোট মনিটরিং করবেন বিশেষ পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে/The News বাংলা
কলকাতা নয় কোচবিহার থেকে ভোট মনিটরিং করবেন বিশেষ পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

কোচবিহার কেন্দ্র নিয়ে বাড়তি নজর কমিশনের। ৪৫ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনীর প্রায় পুরোটাই থাকছে কোচবিহারে। আলিপুরদুয়ারের স্পর্শকাতর বুথ প্রায় ৩৫০ টি। কিন্তু কোচবিহার নিয়ে এখনও ধোঁয়াশায় কমিশন। কোচবিহারে ২০১০ টি বুথের মধ্যে ১০৬০ টি বুথে থাকবে কেন্দ্রীয় বাহিনী। বাকি ৯৫০ টি বুথে থাকছে রাজ্যের সশস্ত্রবাহিনী। আর বৃহস্পতিবার ভোটের দিন সারাদিন কোচবিহারে থাকবেন বিশেষ পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে। কোচবিহারে থেকেই ভোট মনিটরিং করবেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ পথ হারাল মমতার হেলিকপ্টার, হতে পারত বড় বিপদ

প্রথম দফার নির্বাচনের জন্য নিরাপত্তা সংক্রান্ত প্রস্তুতি নিয়ে বুধবার বৈঠক অনুষ্ঠিত হল নির্বাচন কমিশনে। সিইও আরিজ আফতাবের সভাপতিত্বে বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন এডিজি আইনশৃঙ্খলা সিদ্ধিনাথ গুপ্তা, আইজি বিএসএফ ও এডিজি আর্মড ফোর্স। মূলত প্রস্তুতির সঙ্গে নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিষয়টি উঠে এসেছে। ঠিক হয়েছে, ৪৫ কোম্পানির পাশাপাশি আরও দুই অর্থাৎ মোট ৪৭ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী রাখা হচ্ছে কোচবিহারে।

আরও পড়ুনঃ মোদীকে আটকে দিল নির্বাচন কমিশন, ভোটের আগে জোর ঝটকা

আর মাত্র ২১ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকছে আলিপুরদুয়ারে। রাজ্যের মাত্র ২ টি আসনে বৃহস্পতিবার ভোট নেওয়া হবে। বাহিনী কিভাবে মুভমেন্ট করবে, প্রতি ঘটনার পদক্ষেপ কিভাবে নেবে তা নিয়ে আলোচনা হয়েছে বুধবারের বৈঠকে। কি কি ঠিক হল বৈঠকে? দেখে নি একনজরে ঠিক কি কি সিদ্ধান্ত হল বুধবারের শেষমুহুর্তের নিরাপত্তা বৈঠকে।

আরও পড়ুনঃ নির্বাচন কমিশনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে মিমির বিজ্ঞাপনে মুখ ঢাকল যাদবপুর

কি কি সিদ্ধান্ত হল বুধবারের শেষমুহুর্তের নিরাপত্তা বৈঠকে:
* এখনো পর্যন্ত মোট ৮৩ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী এই দুই কেন্দ্রে নির্বাচনে মোতায়েন থাকবে।
* প্রতি বুথে কমপক্ষে চারজন জোয়ান থাকবেন।
* স্ট্রং রুমের নিরাপত্তায় জোর দেওয়া হয়েছে। ২৪ জন কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ান থাকবেন সেখানে নিরাপত্তার দায়িত্বে।
* পাশাপাশি একজন ইন্সপেক্টর তিনজন সাব ইন্সপেক্টর সহ ২৮ জনের রাজ্য পুলিশের দল থাকছে নিরাপত্তার দায়িত্বে।

আরও পড়ুনঃ রিগিং বন্ধ করে শান্তিপূর্ণ ভোট করাতে ৬টি বিশেষ অ্যাপস আনল নির্বাচন কমিশন

* বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনীর পাশাপাশি থাকবে রাজ্যের সশস্ত্র বাহিনী।
* প্রায় প্রতিটি বুথে ওয়েব কাস্টিং করার নির্দেশ।
* বুথের বাইরে ভোটারদের লাইন মেন্টেন করার জন্য লাঠিধারী পুলিশ এর ব্যবস্থা করা হয়েছে।
* নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে ভিডিওগ্রাফি করা হবে

আরও পড়ুনঃ ভোটের ঠিক আগে রাফাল মামলা নিয়ে চাঞ্চল্যকর নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট

তবে আরও কেন্দ্রীয় বাহিনী দেবার চেষ্টা চলছে। কোন ধরণের অশান্তি বরদাস্ত করা হবে না বলেই কড়া নির্দেশ নির্বাচন কমিশনের। জেলা প্রশাসনের কাছেও বার্তা দিল নির্বাচন কমিশন। সমস্ত বিষয়ের রিপোর্ট পাঠানো হচ্ছে কেন্দ্রীয় বিশেষ পুলিশ অবজারভার বিবেক দুবেকে। ঠিক হয়েছে, কলকাতা নয় কোচবিহার থেকে ভোট মনিটরিং করবেন বিশেষ পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে। ফলে কোচবিহারকে যে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে কমিশন সেটা বলাই যায়।

আরও পড়ুনঃ ভোট বুথে গুন্ডাগিরি ও রিগিং রুখতে নির্বাচন কমিশন আনল বিশেষ অ্যাপ

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন