ভারতের সংবিধান রক্ষা করতে ধর্মতলায় আবার ধর্ণা

232
ভারতের সংবিধান রক্ষা করতে ধর্মতলায় আবার ধর্ণা
ভারতের সংবিধান রক্ষা করতে ধর্মতলায় আবার ধর্ণা/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

ধর্মতলায় আবার ধর্ণা! ধর্মতলায় কেন্দ্রের বিরুদ্ধে মমতার ধর্ণা দিয়ে রাজ্য ছাড়িয়ে তোলপাড় গোটা দেশ। সেই আন্দোলনের রেশ এখনও রয়ে গেছে। তবে এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর নয়। এই ধর্ণা বামেদের। কলকাতায় মেট্রো চ্যানেলে ধর্ণায় বসতে চলেছেন শিলিগুড়ি পুরনিগমের মেয়র তথা রাজ্যের বিধায়ক অশোক ভট্টাচার্য। বুধবার শিলিগুড়ি পুরনিগমে একটি সাংবাদিক বৈঠক করে এমন হুঁশিয়ারি দিলেন তিনি।

আরও পড়ুনঃ সারদা রোজভ্যালি চিটফান্ড কাণ্ডে মমতার পুলিশ কর্তাদের বারবার তলব গোয়েন্দাদের

বুধবার শিলিগুড়ি পুরনিগমের মেয়র তথা রাজ্যের বিধায়ক অশোক ভট্টাচার্য বলেন, “পুরনিগমের কাজে নানাভাবে হস্তক্ষেপ করছে রাজ্য সরকার। এছাড়াও প্রচুর টাকা বকেয়া আছে। টাকা দিচ্ছে না মমতার সরকার। সেকারণে সমস্যা হচ্ছে কাজে। বন্ধ হয়ে গেছে সব উন্নয়নের কাজ”। আর তার বিরুদ্ধেই এবার ধর্মতলায় মেট্রো চ্যানেলে ধর্ণায় বসছেন বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুনঃ নতুন যুদ্ধ, রোজভ্যালি চিটফান্ড কাণ্ডে মমতার দুই অফিসারকে ডেকে পাঠাল ইডি

ভারতের সংবিধান রক্ষা করতে ধর্মতলায় আবার ধর্ণা/The News বাংলা
ভারতের সংবিধান রক্ষা করতে ধর্মতলায় আবার ধর্ণা/The News বাংলা

খুব শীঘ্রই রাজ্য সরকারের কাছে পাওনা বকেয়া আদায়ে মেট্রো চ্যানেলে ধর্ণায় বসতে চলেছেন শিলিগুড়ি পৌর কর্পোরেশনের মেয়র ও শিলিগুড়ির বিধায়ক অশোক ভট্টাচার্য। শিলিগুড়ি পৌর কর্পোরেশনে বুধবার সাংবাদিক সম্মেলন করে অশোক ভট্টাচার্য একথা জানিয়ে বলেন, “ফেডারেল স্ট্রাকচারের মানে শুধু কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকার নয়। স্থানীয় স্বায়ত্তশাসিত সরকার বা লোকাল সেলফ্ গভর্নমেন্টকে বাদ দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামো হয় না”।

আরও পড়ুনঃ সারদা চিটফান্ডে সর্বহারাদের দেখেই কি তাড়াতাড়ি ধর্ণা শেষ করলেন মমতা

তিনি আরও বলেন, “কেন্দ্র, রাজ্য ও স্থানীয় সরকার মিলেই এই কাঠামো। আমি সিবিআই নিয়ে কোন মন্তব্য করতে চাইছি না। কিন্তু কেন্দ্রের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোতে আঘাত হানার অভিযোগে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ধর্ণা বসেছিলেন। রাজ্য সরকার দ্বারা বামফ্রন্ট পরিচালিত শিলিগুড়ি পৌর কর্পোরেশনকে বঞ্চিত করা হচ্ছে তার সাংবিধানিক অধিকার থেকে। তাহলে আমিও সাংবিধানিক অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে মেট্রো চ্যানেলে ধর্ণায় বসব”।

আরও পড়ুনঃ সারদা চিটফাণ্ড মামলায় রাজীবকে জেরা করতে কি কি প্রশ্ন সাজাচ্ছে সিবিআই

পার্টি এবং কাউন্সিলরদের সঙ্গে আলোচনা করেই দিনক্ষণ চূড়ান্ত করা হবে, বলে জানিয়েছেন সিপিএম নেতা অশোক ভট্টাচার্য। তিনি হুঁশিয়ারি দেন, মমতা ব্যানার্জি মুখ্যমন্ত্রী তাই তিনি রাজ্য সরকারের অনুমতির তোয়াক্কা না করেই ধর্ণায় বসেছিলেন। আমি রাজ্য সরকারের কাছে অনুমতি চাইব।

আরও পড়ুনঃ উঠল বিজেপি বিরোধী সত্যাগ্রহ ধর্ণা, ধর্মতলার ধর্ণা প্রধানমন্ত্রী করতে পারবে মমতাকে

ভারতের সংবিধান রক্ষা করতে ধর্মতলায় আবার ধর্ণা/The News বাংলা
ভারতের সংবিধান রক্ষা করতে ধর্মতলায় আবার ধর্ণা/The News বাংলা

অশোক ভট্টাচার্য জানিয়ে দিয়েছেন, “রাজ্য সরকার মেট্রো চ্যানেলে ধর্ণায় বসার অনুমতি দিলে ভালো। রাজ্য সরকার অনুমতি না দিলেও শিলিগুড়ি পৌর কর্পোরেশনের বকেয়া আদায়ে ধর্মতলায় মেট্রো চ্যানেলে ধর্ণায় বসব। মানুষের উন্নয়নের স্বার্থেই আমি এই সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছি”।

আরও পড়ুনঃ মমতার নির্দেশে সিবিআই অফিসারদের আটক করে বাংলার আইপিএসরা বিপদে

সংবিধান রক্ষায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই ধর্ণায় বসেছিলেন ধর্মতলায় মেট্রো চ্যানেলে। এবার সেই সংবিধান রক্ষা অস্ত্র তাঁর বিরুদ্ধেই প্রয়োগ করতে চলেছেন অশোক ভট্টাচার্য। তবে তিনি মেট্রো চ্যানেলে ধর্ণার অনুমতি পান কিনা সেটাই এখন দেখার। পেলে লোকসভা ভোটের আগে সেই ধর্ণা বামেদের লড়াইয়ে কতটা সাহায্য করে সেটার দিকেই তাকিয়ে বাম কর্মী সমর্থকরা।

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন