জঙ্গিদের সরাসরি সেনাবাহিনীতে নিচ্ছে ইমরানের পাকিস্তান

562
জঙ্গিদের সরাসরি সেনাবাহিনীতে নিচ্ছে পাকিস্তান/The News বাংলা
জঙ্গিদের সরাসরি সেনাবাহিনীতে নিচ্ছে পাকিস্তান/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

আর কোন লুকোছাপা নয়। এবার জঙ্গিদের সরাসরি সেনাবাহিনীতে নিচ্ছে পাকিস্তান। ইমরান খান সরকারে আসার পরেই ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে এই ঘোষণা হয়। তবে সরকারি কোষাগারে টাকা না থাকায় সেই সময় কার্যকর করা যায়নি। তবে এবার সব জঙ্গিদের প্রথমে আধাসেনা, এমনকি পরে সেনাতেও ভর্তি করবে পাকিস্তান।

আরও পড়ুনঃ ভারত পাকিস্থান ও চীন এর হাতে সেনা ও অস্ত্র কত

অচিরেই পাক সেনায় দেখা যাবে জইশ ই মহম্মদ, লস্কর ই তৈবা প্রভৃতি জঙ্গি গোষ্ঠীর জঙ্গিদের দেখা যাবে পাকিস্তান সেনায়। আর কোন লুকোছাপা নয়। এতদিন সেনাদের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়ত জঙ্গিরা। এবার সরাসরি সেনাদের উর্দিতেই লড়বে জঙ্গিরা। ইমরান খান সরকার পরের বাজেটেই এর জন্য টাকা দেবে বলে জানা গেছে।

আরও পড়ুনঃ মমতার পর সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের প্রমাণ চাইলেন মেহেবুবা

তবে এইভাবে সরাসরি জঙ্গিদের আধাসেনা ও পরবর্তীতে পাক সেনায় অন্তর্ভুক্ত করে ফের একবার তাদের জঙ্গি প্রীতির পরিচয় দিল পাক সরকার, এমনটাই মনে করছে আন্তর্জাতিক মহল।

আরও পড়ুনঃ ভারত সীমান্তে জঙ্গি হামলা ঠেকাতে আধুনিক নজরদারি

বিশ্বজোড়া সন্ত্রাসবাদ নিয়ে উদ্বিগ্ন গোটা পৃথিবী। এমন পরিস্থিতিতে গত বছরেই বিস্ফোরক রিপোর্ট প্রকাশ করে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এবং স্ট্র্যাটেজিক ফোরসাইট গ্রুপ। সেই রিপোর্টে দাবি করা হয় আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদের নিরিখে যুদ্ধবিধ্বস্ত সিরিয়ার থেকেও বিপদজনক পাকিস্তান।

আরও পড়ুনঃ সার্জিক্যাল স্ট্রাইক নিয়ে ফের বেলাগাম সিধু

‘গ্লোবাল টেরর থ্রেট ইন্ডিক্যান্ট’ নামে এই রিপোর্টে বলা হয়েছে মানবতার জন্য সব থেকে বিপদজনক দেশ পাকিস্তান। দীর্ঘ বিগত প্রায় তিন দশক ধরে সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে পাকিস্তানের নিন্দায় বারবার মুখর হয়েছে ভারত ও বিশ্বের অন্যান্য দেশ। জঙ্গি সংগঠনকে মদত দেওয়ার অভিযোগ বহুবার পাকিস্তানের বিরুদ্ধে তুলেছে ভারত।

আরও পড়ুনঃ সার্জিক্যাল স্ট্রাইক নিয়ে যাবতীয় প্রশ্নের জবাব দিলেন বায়ুসেনা প্রধান

রিপোর্টে আরও দাবি করা হয় যে, জঙ্গির মদতের জন্যই বিশ্বজুড়ে সন্ত্রাস চালান বিশ্বের সবথেকে ভয়ঙ্কর জঙ্গি গোষ্ঠিগুলি পাকিস্তানের মাটিতে নিশ্চিন্তে রয়েছে। পাকিস্তানের সমর্থনেই তারা বিশ্বজুড়ে সন্ত্রাস চালাচ্ছে। জইশ ই মহম্মদ এবং লস্কর ই তৈবা সবথেকে বিপদজনক জঙ্গি সংগঠন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। পাকিস্তান যেমন একদিক থেকে আর্থিক সাহায্য করে তেমনি নিরাপদ আশ্রয়ের ক্ষেত্র দিয়ে দুহাত বাড়িয়ে সাহায্য করে জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোকে।

আরও পড়ুনঃ আমি নোবেল পাওয়ার যোগ্য নই বললেন প্রধানমন্ত্রী

এরপর সেই জইশ ই মহম্মদ এবং লস্কর ই তৈবা ও বন্ধ মাদ্রাসার জঙ্গি শিক্ষাগুরুদের সরাসরি আধাসেনায় ভর্তি করার সিদ্ধান্ত নিয়ে সরাসরি বিশ্বের কাছে জঙ্গিদের নিয়ে নিজেদের অবস্থান বুঝিয়ে দিল পাকিস্তান। জঙ্গিদের সরাসরি সেনাবাহিনীতে নিচ্ছে ইমরানের পাকিস্তান, খবর ছড়িয়ে পরার পরেই বিশ্ব জুড়ে শুরু হয়েছে নিন্দা। এইভাবেই জঙ্গিদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে, সাফ জানিয়েছে পাকিস্তান।

আরও পড়ুনঃ পাকিস্তানের কোপে এবার প্রিয়াঙ্কা চোপড়া
আরও পড়ুনঃ Exclusive পাকিস্তান থেকে পালানোর জন্য তৈরি থাকুন জঙ্গিদের জানাল জইশ

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন