লোকসভা ভোটে তৃণমূল ও বিজেপিকে পরাজিত করার ডাক বাংলার বুদ্ধিজীবীদের

1405
লোকসভা ভোটে তৃণমূল ও বিজেপিকে ভোটে পরাজিত করার ডাক বাংলার বুদ্ধিজীবীদের/The News বাংলা
লোকসভা ভোটে তৃণমূল ও বিজেপিকে ভোটে পরাজিত করার ডাক বাংলার বুদ্ধিজীবীদের/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

গণতান্ত্রিক অধিকার রক্ষার স্বার্থে, দেশজুড়ে ধর্মান্ধতা, ঘৃণা এবং অসহিষ্ণুতাকে মদত দেওয়া রাষ্ট্রশক্তি বিজেপিকে উৎখাত করার ডাক দিয়েছেন ভারতবর্ষের বিশিষ্ট চিত্রপরিচালক, চিত্রশিল্পী, সাহিত্যিক এবং চিন্তাবিদরা। এদের মধ্যে আছেন গিরিশ কারনাড, নাসিরুদ্দিন শাহ, অমল পালেকরের মতো মানুষ। এবার সেই চিন্তাভাবনায় শরিক হয়ে বাংলায় তৃণমূল ও বিজেপিকে একসঙ্গে পরাজিত করার ডাক বাংলার বুদ্ধিজীবীদের।

আরও পড়ুনঃ মমতা আরএসএস কোর কমিটির সদস্য, জানিয়ে দিলেন অধীর

“আমরা এই আহ্বানকে সম্পূর্ণ সমর্থন করি”। এই বলেই বিবৃতিতে সই করেছেন বাংলার বুদ্ধিজীবীরা। লেখক, বুদ্ধিজীবী, নাট্যকারদের এই ডাকে সাড়া দিয়ে এবার বাংলায় লোকসভা ভোটে তৃণমূল ও বিজেপিকে একসঙ্গে পরাজিত করার ডাক দিলেন বাংলার বুদ্ধিজীবীরা।

আরও পড়ুনঃ নির্বাচন কমিশনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে মিমির বিজ্ঞাপনে মুখ ঢাকল যাদবপুর

পশ্চিমবঙ্গে সাম্প্রদায়িক ধ্যান-ধারণার দ্রুত বিস্তার, রাজ্যজুড়ে প্রতিযোগিতামূলক সাম্প্রদায়িকতা, পঞ্চায়েত নির্বাচনে মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগে বাধাদান, মতপ্রকাশের স্বাধীনতাকে নির্লজ্জ পেশিশক্তির প্রয়োগে বাধাদান ইত্যাদি বিষয়ে শাসক তৃণমূল দলের ভূমিকাও অত্যন্ত নিন্দনীয়। অন্যদিকে দেশজুড়ে অরাজকতা, সাম্প্রদায়িক আক্রমণ, বেকারত্বের সংখ্যা বৃদ্ধির জন্য বিজেপিকেও একটা ভোটও নয় বলেই জানিয়েছেন তাঁরা।

আরও পড়ুনঃ চিত্র পরিচালক, লেখক ও বিজ্ঞানীদের পর এবার ৬০০ নাট্যকর্মী ঘৃণার রাজনীতির বিরুদ্ধে

আমরা তাই এই রাজ্যের মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার সুরক্ষিত করার স্বার্থে ফ্যাসিবাদী বিজেপি এবং স্বৈরাচারী তৃণমূলকে আসন্ন ১৭তম লোকসভা নির্বাচনে পরাজিত করার আহ্বান জানাচ্ছি। এই বলেই বিবৃতিতে সই করেছেন বাংলার বুদ্ধিজীবীরা। একনজরে দেখে নেওয়া যাক, কে কে সই করেছেন এই বিবৃতিতে।

আরও পড়ুনঃ ঘৃণার রাজনীতির বিরুদ্ধে ভোট দেওয়ার আবেদন জানালেন দেশের ২০০ জন লেখক
আরও পড়ুনঃ চিত্র পরিচালক ও লেখকদের পর ঘৃণার রাজনীতি নিয়ে সরব দেশের সেরা বিজ্ঞানীরা

সই করেছেন বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত, তরুণ মজুমদার, অধ্যাপক অমিয় বাগচী, অর্ধেন্দু সেন, ওয়াসিম কাপুর, সব্যসাচী চক্রবর্তী, অশোক গঙ্গোপাধ্যায়, স্বরূপ দত্ত, স্বপ্নময় চক্রবর্তী, পবিত্র সরকার, অধ্যাপক শোভনলাল দত্তগুপ্ত, শমীক বন্দ্যোপাধ্যায়, উর্মিমালা বসু, রাজা সেন, দীপালি ভট্টাচার্য, অরুণ মুখোপাধ্যায়, কৌশিক সেন, অনীক দত্ত, কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়, মায়া ঘোষ, চিত্রা সেন, অসিত বসু, বিমল চক্রবর্তী, মাসুদ আখতার।

আরও পড়ুনঃ মোদীকে আটকে দিল নির্বাচন কমিশন, ভোটের আগে জোর ঝটকা

এছাড়াও সই করেছেন চন্দন সেন (নাট্যকার), অধ্যাপক রতন খাসনবিশ, অধ্যাপক বিনয় ভূষণ চৌধুরী, কালীকৃষ্ণ গুহ, ফাল্গুনী চট্টোপাধ্যায়, রুমকি চট্টোপাধ্যায়, অধ্যাপক অশোকনাথ বসু, অধ্যাপক আনন্দদেব মুখোপাধ্যায়, অধ্যাপক সিদ্ধার্থ দত্ত, চন্দন সেন (অভিনেতা), কিন্নর রায়, রেহান কৌশিক, শুভপ্রসাদ নন্দী মজুমদার, শুভেন্দু মাইতি, ভদ্রা বসু, বাদশা মৈত্র, সীমা মুখোপাধ্যায়, অধ্যাপক সঞ্জয় মুখোপাধ্যায়।

আরও পড়ুনঃ ভোট বুথে গুন্ডাগিরি ও রিগিং রুখতে নির্বাচন কমিশন আনল বিশেষ অ্যাপ

এছাড়াও সই করেছেন দেবদূত ঘোষ, অনিন্দিতা সর্বাধিকারী, মন্দাক্রান্তা সেন, সংগ্রামজিৎ সেনগুপ্ত, মুরারি রায়চৌধুরী, সৌরভ পালোধী, তূর্ণা দাস, জয়রাজ ভট্টাচার্য, অধ্যাপক সুস্নাত দাস, অধ্যাপক শৌভিক মুখোপাধ্যায়, অধ্যাপক অম্বিকেশ মহাপাত্র, অরুনাভ গাঙ্গুলি, ডঃ তৃষিত রায়, ডঃ অঞ্জনলাল দত্ত, ডঃ অমিত পান, প্রাক্তন বিচারপতি নিসার খান, আনসারুদ্দিন, নিহারুল ইসলাম, চঞ্চল চক্রবর্তী, ডঃ অর্জুন দাসগুপ্ত, ডঃ সিদ্ধার্থ পুরকায়স্থ, ডঃ শ্রীরূপা দাসগুপ্ত, সার্থক রায়চৌধুরী।

আরও পড়ুনঃ কলকাতা নয় কোচবিহার থেকে ভোট মনিটরিং করবেন বিশেষ পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন