প্রচারেই প্রার্থীকে মারধর বাংলায়, কেন্দ্রীয় বাহিনী কোথায় উঠছে প্রশ্ন

234
প্রচারেই প্রার্থীকে মারধর বাংলায়, কেন্দ্রীয় বাহিনী কোথায় উঠছে প্রশ্ন/The News বাংলা
প্রচারেই প্রার্থীকে মারধর বাংলায়, কেন্দ্রীয় বাহিনী কোথায় উঠছে প্রশ্ন/The News বাংলা
Simple Custom Content Adder

মঙ্গলবার রাজ্যের দুটি লোকসভা কেন্দ্র আসানসোল এবং ডায়মন্ড হারবারের বামফ্রন্ট মনোনীত সিপিআই(এম) প্রার্থী যথাক্রমে গৌরাঙ্গ চ্যাটার্জি এবং ডা. ফুয়াদ হালিম নির্বাচনী প্রচারের সময় রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের দুষ্কৃতীবাহিনীর হাতে আক্রান্ত হয়েছেন। বামেদের তরফ থেকে এমন অভিযোগ ভিডিও দিয়ে জমা দেওয়া হয়েছে রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী অফিসারের দফতর।

আরও পড়ুনঃ ছত্তিশগড়ে বিজেপি নেতার কনভয়ে ভয়ঙ্কর মাওবাদী হামলায় মৃত বিধায়ক সহ ছয়

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে বাম প্রার্থীদের এলাকায় না ঢোকার হুমকি দিচ্ছে একদল দুষ্কৃতী। এরপর রীতিমত মারধর করা হয় দুই প্রার্থীকেই। মারধর করা হয় প্রার্থীদের সঙ্গে থাকা কর্মী সমর্থকদের। দুই ক্ষেত্রেই আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়।

আরও পড়ুনঃ লোকসভা নির্বাচনে উত্তরপ্রদেশে মহাজোটের ভরাডুবির আশঙ্কা, ইঙ্গিত সমীক্ষায়

মঙ্গলবার সকালে আসানসোলের বারাবনীর মদনপুর গ্রামে পুলিশ প্রশাসনকে আগাম অবহিত করে নির্বাচনী প্রচারের সময় গৌরাঙ্গ চ্যাটার্জির ওপরে তৃণমূল কংগ্রেসের আশ্রিত কয়লা মাফিয়াদের বাহিনী আক্রমণ চালায়। অভিযোগ বামেদের। এই ঘটনায় প্রার্থী গৌরাঙ্গ চ্যাটার্জি সহ ছয়জন সিপিআই(এম) নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

আরও পড়ুনঃ নরেন্দ্র মোদীর জীবনী নিয়ে ফিল্ম রিলিজ আটকানোর মামলা খারিজ করল সুপ্রিম কোর্ট

এদিনই দুপুরে ডায়মন্ড হারবারের ফলতায় ডা. ফুয়াদ হালিমকে প্রচারে বাধা দিতে রাজ্যের শাসকদলের দুষ্কৃতীবাহিনী হামলা চালিয়েছে। অভিযোগ বামেদের। এখানেও ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে একদল দুষ্কৃতী প্রার্থীকে হুমকি দিচ্ছে ও মারধর করছে।

আরও পড়ুনঃ ৩৭০ ধারা বিলোপ হলে ভারত থেকে কাশ্মীরকে বিচ্ছিন্ন করার হুঁশিয়ারি ফারুক আবদুল্লাহর

প্রার্থীসহ সাতজন সিপিআই(এম) নেতাকর্মী আহত হন সেখানে। ডায়মন্ড হারবারে মুখ্যমন্ত্রীর ভাইপোর জয় সম্পর্কে সন্দিহান হয়ে ধারাবাহিক মরিয়া আক্রমণ চালাচ্ছে শাসকদলের দুষ্কৃতী বাহিনী। এমনটাই অভিযোগ বামেদের। তবে বামেদের উপর আক্রমণের ঘটনায় তাদের কোন কর্মীর কোন যোগ নেই বলেই জানিয়ে দিয়েছে তৃণমূল।

আরও পড়ুনঃ বিজেপির নির্বাচনী ইস্তাহারে কাশ্মীরের ৩৭০ এবং ৩৫ এ নং ধারা বিলোপের প্রতিশ্রুতি

গতকাল সোমবার পুলিশ প্রশাসনকে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা বামফ্রন্টের পক্ষ থেকে শাসকদলের হামলা সম্পর্কে আশঙ্কার কথা আগাম জানানো সত্ত্বেও ফলতায় এদিনের ঘটনা ঘটেছে। এর আগে সোমবার বসিরহাট লোকসভা কেন্দ্রের বামফ্রন্ট মনোনীত সিপিআই প্রার্থী পল্লব সেনগুপ্তকেও গাড়ি থামিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের দুষ্কৃতীরা খুনের হুমকি দিয়েছে। প্রচারে এলে লাশ ফেলে দেবার হুমকি দেওয়া হয়েছে। বামেদের তরফে অভিযোগ জমা পরেছে নির্বাচন কমিশনের কাছে।

আরও পড়ুনঃ কেন গ্রেফতার করা হবে না, রাজীব কুমারকে নোটিশ সুপ্রিম কোর্টের

সিপিআই(এম) পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য কমিটির সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র জানিয়েছেন, “বামফ্রন্ট প্রার্থীদের নির্বাচনী প্রচারে বাধা ও আক্রমণের ঘটনাগুলি প্রমাণ করছে এ রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস কতটা দুর্বল ও মরিয়া হয়ে গেছে। আমরা সিপিআই(এম) এর পক্ষ থেকে শাসকদলের দুষ্কৃতীদের এই সব আক্রমণের তীব্র নিন্দা করছি এবং নির্বাচন প্রক্রিয়া শুরু হয়ে যাওয়ার পরে প্রচারকালে প্রার্থীদের ওপরে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে অবিলম্বে কার্যকরী ব্যবস্থাগ্রহণের জন্য প্রশাসন ও নির্বাচন কমিশনের কাছে দাবি জানাচ্ছি”।

আরও পড়ুনঃ তিন তালাকের ব্যাপারে সরকারের হস্তক্ষেপ অনুচিত, বলছেন মুসলিম মহিলারা

যেহেতু পুলিশ প্রশাসনকে বামফ্রন্ট প্রার্থীদের প্রচার কর্মসূচীগুলি সম্পর্কে আগাম অবহিত করার পরেও উপরোক্ত আক্রমণের ঘটনাগুলি ঘটেছে, তাই এর জন্য বামেদের তরফ থেকে দায়ী অফিসারদের চিহ্নিত করে তাঁদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানানো হচ্ছে নির্বাচন কমিশনের কাছে। বামফ্রন্ট প্রার্থীদের ওপরে শাসকদলের আক্রমণ সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে আগামীকাল বুধবার রাজ্যের সর্বত্র নির্বাচনী প্রচার কর্মসূচীর সঙ্গে যুক্ত করে প্রতিবাদ মিছিল সংগঠিত করার আবেদন জানান হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ ভারতীয়দের বাঁদরের সঙ্গে তুলনা করলেন রাহুলের গুরু পিত্রোদা

আপনার মোবাইলে বা কম্পিউটারে The News বাংলা পড়তে লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ।

Comments

comments

আপনাদের মতামত জানাতে কমেন্ট করুন